বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়তে আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর সদস্যরা অবদান রাখবেন : প্রধানমন্ত্রীর আশাবাদ


Published: 2020-02-12 02:24:56 BdST, Updated: 2020-04-02 00:32:21 BdST

 

ঢাকা, ১১ ফেব্রুয়ারি, ২০২০  : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আশা প্রকাশ করে বলেছেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ক্ষুধা-দারিদ্র্যমুক্ত ও সুখী-সমৃদ্ধ স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশ গড়তে বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর প্রতিটি সদস্য গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখবেন। আগামীকাল বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী ও ৪০তম জাতীয় সমাবেশ- উপলক্ষে আজ মঙ্গলবার দেয়া একবাণীতে প্রধানমন্ত্রী এই আশাবাদ ব্যক্ত করেন।
শেখ হাসিনা বলেন, ‘আমি আশা করি, বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর প্রতিটি সদস্য দেশপ্রেমের গভীর আদর্শ ও চেতনায় উজ্জীবিত হয়ে বাহিনীর সুনাম, ঐতিহ্য, মর্যাদা অক্ষুন্ন রেখে দেশ ও জাতির শান্তি-শৃঙ্খলা এবং নিরাপত্তা রক্ষা ও সার্বিক আর্থসামাজিক উন্নয়নে আরো দায়িত্ববান হবেন। জাতির পিতার ক্ষুধা-দারিদ্র্যমুক্ত ও সুখী-সমৃদ্ধ স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশ গড়তে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখবেন।’ প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী ও ৪০তম জাতীয় সমাবেশ উপলক্ষে এ বাহিনীর সর্বস্তরের কর্মকর্তা, কর্মচারী এবং সদস্যদের আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আনসার সদস্যরা দেশের বিভিন্ন সংস্থা ও শিল্প কারখানার নিরাপত্তা রক্ষায় নিয়োজিত থেকে মানুষের জান-মাল হেফাজতের দায়িত্ব দক্ষতার সঙ্গে পালন করে আসছে। মাদক নিয়ন্ত্রণ, সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ, উগ্রবাদ ও সহিংসতা প্রতিরোধে এ বাহিনী কাজ করে যাচ্ছে।’ তিনি বলেন, ‘দেশের সার্বিক আইন-শৃঙ্খলা রক্ষা এবং জননিরাপত্তায় বাহিনীর সদস্যরা সদা তৎপর। সকল নির্বাচন, বিভিন্ন ধর্মীয় উৎসব এবং জাতীয় গুরুত্বপূর্ণ ও সংকটময় মুহুর্তে এ বাহিনীর সদস্যরা দক্ষতার সঙ্গে দায়িত্বপালন করে আসছেন।’
শেখ হাসিনা বলেন, ‘বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনী সরকারের যাবতীয় উন্নয়ন কর্মকান্ডের সাফল্যের অন্যতম অংশীদার। এ বাহিনী জাতীয় অঙ্গনে গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্বপালন করে আসছে।’ তিনি বলেন, ‘দেশের গ্রামীণ জনপদে আত্মকর্মসংস্থান, গণশিক্ষা, পরিবার পরিকল্পনা, জনস্বাস্থ্য, দুর্যোগ মোকাবিলা, পরিবেশ রক্ষা, বৃক্ষরোপণ, নারী ও শিশু পাচার রোধ এবং সামাজিক শৃঙ্খলা রক্ষাসহ সকল কার্যক্রমে এ বাহিনীর সদস্যরা অবদান রাখছেন।’
ভাষা আন্দোলন, মুক্তিযুদ্ধসহ বিভিন্ন সময়ে রাষ্ট্রীয় দায়িত্ব পালনকালে এই বাহিনীর যাঁরা শহিদ হয়েছেন, তাদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর রয়েছে গৌরবময় ঐতিহ্য। সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আহ্বানে সাড়া দিয়ে ১৯৭১ সালে এ বাহিনীর সদস্যরা মহান মুক্তিযুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়েন।’ বাণীতে তিনি বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর উত্তরোত্তর সাফল্য কামনা করেন।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

সম্পাদক: মুহাম্মদ মাহবুবুর রহমান পলাশ

যোগাযোগ: গুলিস্তান শপিং কমপ্লেক্স, রুম নং-১০০, ঢাকা। মোবাইল: ০১৭৪০-৫৯৯৯৮৮. E-mail: odhikarpatra@gmail.com

সম্পাদক: মুহাম্মদ মাহবুবুর রহমান পলাশ

যোগাযোগ: গুলিস্তান শপিং কমপ্লেক্স, রুম নং-১০০, ঢাকা। মোবাইল: ০১৭৪০-৫৯৯৯৮৮. E-mail: odhikarpatra@gmail.com


Developed by: EASTERN IT