সামরিক বাহিনীতে তথ্য প্রযুক্তির সুবিধাগুলো যথাযথভাবে কাজে লাগানোর আহ্বান


Published: 2019-11-27 12:56:26 BdST, Updated: 2019-12-16 19:21:40 BdST

মো. আবদুল হামিদ রাষ্ট্রপতি আজ সশস্ত্র বাহিনীর প্রতিটি সদস্যকে সামরিক জীবনে তথ্য প্রযুক্তির (আইটি) সুবিধাসমূহ যথাযথভাবে কাজে লাগানোর আহ্বান জানিয়েছেন। তিনি একই সঙ্গে এর অপব্যবহার রোধে সর্বদা প্রস্তুত থাকারও ওপরেও গুরুত্ব আরোপ করেন। প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তা বিষয়ক উপদেষ্টা মেজর জেনারেল (অব.) তারেক আহমেদ সিদ্দিক, মন্ত্রিপরিষদ সচিব, তিন বাহিনীর প্রধানগণ, মূখ্য সচিব, বঙ্গভবনের সংশ্লিষ্ট সচিবগণ, উর্ধ্বতন বেসামরিক ও সামরিক কর্মকর্তাসহ অন্যরা উপস্থিত ছিলেন।
 ‘আপনারা কর্মক্ষেত্রে আইটি (তথ্য প্রযুক্তি)-র সমস্ত সুযোগ-সুবিধা যথাযথভাবে ব্যবহার করুন। আইটির অপব্যবহার রোধে সর্বদা প্রস্তুত থাকুন।’, সশস্ত্র বাহিনী দিবস-২০১৯ উপলক্ষে বঙ্গভবনে এক ভোজ অনুষ্ঠানে রাষ্ট্রপতি বলেন।
সশস্ত্র বাহিনীর সর্বাধিনায়ক আবদুল হামিদ পরামর্শ দিয়ে বলেন, ‘সাইবার ক্রাইম এখন একটি নিত্যদিনের ঘটনা। সুতরাং আমাদের সশস্ত্র বাহিনীর প্রতিটি সদস্যকে অবশ্যই তাদের নিজ-নিজ দায়িত্ব সম্পর্কে সচেতন থাকতে হবে।’
‘তথ্য প্রযুক্তির ব্যাপক প্রসারের ফলে প্রতিটি পেশার ক্ষেত্রেই সুযোগ-সুবিধা যেমন বেড়েছে তেমনি চ্যালেঞ্জের মাত্রাও বেড়েছে।’ রাষ্ট্রপ্রতি পর্যবেক্ষণ করেছেন যে, ‘জাতীয়, সামাজিক ও ব্যক্তি নিরাপত্তার হুমকি এখন অনেক বেশি।’
তিনি বলেন, যে কোনো বাহিনীর উন্নয়নের পূর্বশর্ত হলো নেতৃত্বের প্রতি গভীর আস্থা, পারস্পরিক বিশ্বাস, শ্রদ্ধাবোধ, পেশাগত দক্ষতা এবং সর্বোপরি শৃঙ্খলা।
রাষ্ট্রপতি বলেন, আমার দৃঢ় বিশ্বাস, মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় সশস্ত্র বাহিনীর সদস্যগণ নেতৃত্বের প্রতি পরিপূর্ণ অনুগত থেকে কঠোর অনুশীলন, শৃঙ্খলা, পেশাগত দক্ষতা, কর্তব্যনিষ্ঠা ও দেশপ্রেমের সমন্বয়ে তাঁদের গৌরব সমুন্নত রাখতে সর্বাত্মক প্রচেষ্টা অব্যাহত রাখবেন।
তিনি বলেন, মহান মুক্তিযুদ্ধের মধ্য দিয়ে গড়ে ওঠা সশস্ত্র বাহিনী জাতির গর্বের প্রতীক। সশস্ত্র বাহিনীর সদস্যগণ দেশের স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব রক্ষার মহান দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি যে কোনো প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবিলায় বেসামরিক প্রশাসনকে সহযোগিতাসহ জাতিগঠনমূলক কর্মকান্ডে প্রশংসনীয় ভূমিকা পালন করে যাচ্ছেন।
আবদুল হামিদ আশা করেন, সশস্ত্র বাহিনীর সদস্যরা নিজেদেরকে বিশ্বমানে গড়ে তুলবেন এবং উন্নত বিশ্বের সঙ্গে নিজেদেরকে খাপ খাইয়ে এগিয়ে যাবেন।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

সম্পাদক: মুহাম্মদ মাহবুবুর রহমান পলাশ

যোগাযোগ: গুলিস্তান শপিং কমপ্লেক্স, রুম নং-১০০, ঢাকা। মোবাইল: ০১৭৪০-৫৯৯৯৮৮. E-mail: odhikarpatra@gmail.com

সম্পাদক: মুহাম্মদ মাহবুবুর রহমান পলাশ

যোগাযোগ: গুলিস্তান শপিং কমপ্লেক্স, রুম নং-১০০, ঢাকা। মোবাইল: ০১৭৪০-৫৯৯৯৮৮. E-mail: odhikarpatra@gmail.com


Developed by: EASTERN IT