মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উজ্জীবিত করতে হবে শিক্ষার্থীদের : কৃষিমন্ত্রী


Published: 2020-01-10 23:51:03 BdST, Updated: 2020-01-18 11:51:20 BdST

শিক্ষার্থীদের মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উজ্জীবিত করতে হবে : কৃষিমন্ত্রী

 

ঢাকা, ১০ জানুয়ারি, ২০২০ : কৃষিমন্ত্রী ড. মোঃ আব্দুর রাজ্জাক শিক্ষার্থীদের মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উজ্জীবিত করে দেশপ্রেম ও মূল্যবোধের শিক্ষা দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন।
তিনি শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে বলেন, ‘মুক্তিযুদ্ধ ও জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এবং দেশের সঠিক ইতিহাস জানতে হবে।’
আজ রাজধানীর আইডিয়াল কলেজের সুবর্ণ জয়ন্তী ও পুনর্মিলনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
কৃষিমন্ত্রী বলেন, আলোকিত জনগোষ্ঠী গড়তে বাংলাদেশে শিক্ষার গুণগত মান উত্তরোত্তর বৃদ্ধি পাচ্ছে। গত এক দশকে শিক্ষার সর্বস্তরেই চোখে পড়ার মতো অগ্রগতি সাধিত হয়েছে। শিক্ষার এই ব্যাপক অগ্রগতি ও সক্ষমতা অর্জন অর্থনীতির ভিত্তিকেও করেছে মজবুত ও টেকসই।
তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী দেশরতœ শেখ হাসিনার নেতৃত্বে উন্নয়নের মহাসড়কে দেশ। উন্নয়নের এই গতিকে আরও বেগবান করতে হবে, আগামীতে তোমাদের নেতৃত্বে সমৃদ্ধশালী বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠিত হবে। বাংলাদেশ ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত রাষ্ট্রে উপনীত হবে, আর সে সময় রাষ্ট্র পরিচালনায় থাকবে তোমরা (এখনকার শিক্ষার্থী), তাই উন্নত বাংলাদেশের উপযুক্ত নাগরিক হিসেবে নিজেকে গড়তে হবে। শিক্ষিত দেশ প্রেমিক ও শৃঙ্খলিত মানুষ দিয়েই বাংলাদেশের উন্নয়ন সম্ভব।
মন্ত্রী শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে বলেন, “পাশ করে বের হয়ে সমাজ ও রাষ্ট্রের জন্য নিজেকে নিয়োজিত করতে হবে। এমন কিছু করে যেতে হবে যাতে করে মানুষ চিররদিন মনে রাখবে শ্রদ্ধাভরে।”
তিনি বলেন, উপযুক্ত শিক্ষাই পারে সামাজিক, মানসিক ও অর্থনৈতিকভাবে স্বাবলম্বী করতে। জাতির পিতা শিক্ষাকে সব থেকে বেশি গুরুত্ব দিয়েছিলেন। জাতির পিতা শিক্ষাকে অবৈতনিক ঘোষণা করেছিলেন। সংবিধানে শিক্ষাকে গুরুত্ব দিয়েছিলেন। শিক্ষার মাধ্যমে জাতিকে তিনি উন্নত করতে চেয়েছিলেন।
এসময় মন্ত্রী বঙ্গবন্ধুর জীবনের কিছু ইতিহাস তুলে ধরে বলেন, সরকার দেশের সকল জনগণকে একত্রিত করতে চায়। শিক্ষাক্ষেত্রে গুণগত পরিবর্তন করে নতুন প্রজন্মকে আধুনিক মানসম্মত যুগোপযোগী শিক্ষা এবং আধুনিক জ্ঞান-বিজ্ঞান-প্রযুক্তিতে দক্ষ মানব সম্পদ হিসেবে গড়ে তোলা সরকারের অন্যতম লক্ষ্য।
গভর্নিং বডির সভাপতি অ্যাডভোকেট সৈয়দ রেজাউর রহমান-এর সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন জাতীয় মহিলা সংস্থার চেয়ারম্যান মমতাজ বেগম, কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ ড. মো. শামসুল আলম খান, কলেজের অধ্যক্ষ মো. জসিম উদ্দীন আহমেদ ও আওয়ামী লীগ নেতা প্রফেসর মেজবাউর রহমান ভূইয়া রতন।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

সম্পাদক: মুহাম্মদ মাহবুবুর রহমান পলাশ

যোগাযোগ: গুলিস্তান শপিং কমপ্লেক্স, রুম নং-১০০, ঢাকা। মোবাইল: ০১৭৪০-৫৯৯৯৮৮. E-mail: odhikarpatra@gmail.com

সম্পাদক: মুহাম্মদ মাহবুবুর রহমান পলাশ

যোগাযোগ: গুলিস্তান শপিং কমপ্লেক্স, রুম নং-১০০, ঢাকা। মোবাইল: ০১৭৪০-৫৯৯৯৮৮. E-mail: odhikarpatra@gmail.com


Developed by: EASTERN IT