পদ্মা সেতুর পিলারে বারবার ফেরির ধাক্কা লাগার পেছনে অন্য কারণ আছে কি না, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে-ওবায়দুল কাদের


Published: 2021-08-13 20:38:50 BdST, Updated: 2021-09-29 08:19:51 BdST

স্টাফ রিপোর্টারঃ পদ্মা সেতুর পিলারে বারবার ফেরির ধাক্কা লাগার পেছনে অন্য কারণ আছে কি না, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

শুক্রবার (১৩ আগস্ট) বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে পদ্মাসেতু পরিদর্শনে গিয়ে মুন্সিগঞ্জের মাওয়া প্রান্তে তিনি এ কথা বলেন।

এ সময় সেতুমন্ত্রী বলেন, পদ্মা সেতুর পিলারে এ নিয়ে চারবার ধাক্কার ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনাকে তুচ্ছ কোনো ঘটনা ও নিছক কোনো দুর্ঘটনা অথবা চালকের অদক্ষতা বলে এড়িয়া যাওয়া ভুল হবে। এখানে কোনো ষড়যন্ত্র আছে কি না, অন্তর্ঘাত আছে কি না—তদন্ত করে দেখতে হবে।

তিনি আরও বলেন, সেনাবাহিনীকে বলব এ ব্যাপারে গভীরভাবে তদারকি করার জন্য। এখানে সর্ষের মধ্যে ভূত আছে কি না তাও খতিয়ে দেখতে হবে।

শুক্রবার সকাল পৌনে ৭টার দিকে বাংলাবাজার ঘাট থেকে শিমুলিয়া ঘাটে আসার পথে কাকলি নামের একটি ফেরি পদ্মার সেতুর ১০ নম্বর পিলারে ধাক্কা দেয়। এ নিয়ে পদ্মা সেতুর পিলারে চারবার ফেরির ধাক্কা লাগার ঘটনা ঘটল।

এর আগেও তিনবার বাংলাবাজার ঘাট থেকে আসার পথে পদ্মা সেতুর পিলারে আঘাত করে ফেরি। গত ২০ ও ২৩ জুলাই ১৬ ও ১৭ নম্বর পিলারে এবং ৯ আগস্ট ১০ নম্বর পিলারে আঘাত করে। থানায় জিডি, তদন্ত কমিটি গঠন, ফেরি চালকদের সাময়িক বরখাস্ত করা হয় সেসব ঘটনায়।

এসব ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করে সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘পদ্মা সেতু নিয়ে অনেক ষড়যন্ত্র হয়েছে। এখনো এর পেছনে অনেক লোক লেগে আছে। দেশে-বিদেশে থেকেও লেগে আছে। বারবার কেন ঘটছে ধাক্কার ঘটনা?’

তিনি বলেন, ‘পদ্মা সেতু এখন জাতীয় সম্পদ। সারা দেশের মানুষের অনুভূতিতে আঘাত আসে। সেতুটি গোটা জাতির সম্পদ। জাতীয়ভাবে মানুষ আহত হচ্ছে। এভাবে কেন বারে বারে পদ্মা সেতুতে আঘাত লাগছে। এজন্য আজ শুক্রবার সন্ধ্যায় সভা হবে।’

এ সময় উপস্থিত ছিলেন সেতু বিভাগের সচিব আবু বক্কর ছিদ্দিক, পদ্মা সেতুর প্রকল্প পরিচালক শফিকুল ইসলাম, বিআইডব্লিউটিএর চেয়ারম্যান কমডোর গোলাম সাদেক, বিআইডব্লিউটিসির চেয়ারম্যান সৈয়দ তাজুল ইসলাম, জেলা প্রশাসক কাজী নাহীদ রসুল, পুলিশ সুপার আব্দুল মোমেনসহ আরও অনেকে।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

সম্পাদক: মুহাম্মদ মাহবুবুর রহমান পলাশ

যোগাযোগ: গুলিস্তান শপিং কমপ্লেক্স, রুম নং-১০০, ঢাকা। মোবাইল: ০১৭৪০-৫৯৯৯৮৮. E-mail: odhikarpatra@gmail.com

সম্পাদক: মুহাম্মদ মাহবুবুর রহমান পলাশ

যোগাযোগ: গুলিস্তান শপিং কমপ্লেক্স, রুম নং-১০০, ঢাকা। মোবাইল: ০১৭৪০-৫৯৯৯৮৮. E-mail: odhikarpatra@gmail.com


Developed by: EASTERN IT