আইএসের অধীনে ভয়াবহতার কথা জানালেন ইয়াজিদি নারী


Published: 2019-11-14 05:55:55 BdST, Updated: 2019-12-09 03:10:24 BdST

ইমানের বয়স যখন মাত্র ১৩ বছর তখন তাকে অপহরণ করে আইএস জঙ্গিরা। জঙ্গি গোষ্ঠী আইএসের হাত থেকে মুক্তি পাওয়া ইমান আব্দুল্লাহসহ আরো বেশ কয়েকজন ইয়াজিদি নারী সমপ্রতি মাদার তেরেসা অ্যাওয়ার্ড জিতেছেন। এরপর আইএসের যৌনদাসী বিক্রির বাজারে বেশ কয়েকবার বিক্রি হয়েছেন তিনি। মুক্তি পাওয়ার আগে বেশ কয়েক জনের হাতে ধর্ষণের শিকার হতে হয়েছিলো তাকে। বর্তমানে তিনি তার পরিবারের কাছে ফিরে যেতে পেরেছেন এবং ভারতের মুম্বইতে এসেছিলেন সাহসিকতার জন্য মাদার তেরেসা পুরস্কার গ্রহণ করতে। ইরাকের সিনজার শহর হচ্ছে মূলত ইয়াজিদিদের আবাসস্থল।

ইয়াজিদিরা ইরাকের একটি সংখ্যালঘু গোষ্ঠী যারা আইএসের নৃশংসতার অন্যতম টার্গেট ছিল। ইমান জানান, জঙ্গিরা শুধু ইয়াজিদি মেয়েদের যৌনদাসীই বানাতো না, আমাদেরকে ধর্মান্তরিত করতেও বাধ্য করেছে। আমরা সেখানে শারীরিক ও মানসিক উভয়ভাবেই নির্যাতিত হয়েছি। 


সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

সম্পাদক: মুহাম্মদ মাহবুবুর রহমান পলাশ

যোগাযোগ: গুলিস্তান শপিং কমপ্লেক্স, রুম নং-১০০, ঢাকা। মোবাইল: ০১৭৪০-৫৯৯৯৮৮. E-mail: odhikarpatra@gmail.com

সম্পাদক: মুহাম্মদ মাহবুবুর রহমান পলাশ

যোগাযোগ: গুলিস্তান শপিং কমপ্লেক্স, রুম নং-১০০, ঢাকা। মোবাইল: ০১৭৪০-৫৯৯৯৮৮. E-mail: odhikarpatra@gmail.com


Developed by: EASTERN IT