পদ্মাসেতুর ৩৮তম স্প্যান স্থাপন , দৃশ্যমান ৫৭০০ মিটার


Published: 2020-11-21 18:10:01 BdST, Updated: 2020-12-04 10:23:33 BdST

 

মুন্সীগঞ্জ, ২১ নভেম্বর, ২০২০  : মাত্র ৯ দিনের মাথায় পদ্মাসেতুর ৩৮তম স্প্যানটি মুন্সীগঞ্জের মাওয়া প্রান্তের ১ ও ২ নম্বর খুঁটিতে স্থাপন করা হয়েছে।
শনিবার দুপুর ২টা ৩৫ মিনিটে মাওয়া প্রান্তের ১ ও ২ নম্বর খুঁটির ওপর স্প্যানটি স্থাপন করা হয় । এর মাধ্যমে সেতুর এখন দৃশ্যমান হলো ৫৭০০ মিটার। ৪১ স্প্যানের মধ্যে বাকি এখন থাকছে মাত্র ৩টি।
পদ্মাসেতু কর্তপক্ষ জানিয়েছে বিজয় দিবসের আগে অপর তিনটি স্প্যান স্থাপন করা হবে। এর মধ্যে নভেম্বরে আরও ১টি স্প্যান স্থাপন করা হবে।
পদ্মাসেতুর নির্বাহী প্রকৌশলী (মূল সেতু) দেওয়ান মো. আব্দুল কাদের বলেন, কুমারভোগের কন্সট্রাকশন ইয়ার্ড থেকে স্প্যানটি নিয়ে রওনা হয় ভাসমান জাহাজ ‘তিয়ান ই’। ‘১-এ’ নামের নামের স্প্যানটি খুঁটির কাছে পৌঁছে দেওয়ার পর শুরু হয় বসানোর নানা প্রক্রিয়া। এ্যাংকরিংসহ অন্যান্য অনুষঙ্গিক কাজ শেষে দুপুর ২টা ৩৫ মিনিটে স্প্যানটি স্থাপন করা হয়। এর আগে ১২ নভেম্বর মাওয়া প্রান্তের ৯ ও ১০ নম্বর খুঁটিতে ৩৭তম স্প্যানটি স্থাপন করা হয়।
তিনি বলেন, সেতুর ৪২টি খুঁটির ওপর ৪১টি স্প্যান বসানো হবে। এর মধ্যে ৩৮টি স্প্যান বসে সেতুর দৃশ্যমান এখন ৫৭০০ মিটার। ৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার দৈর্ঘ্যের দ্বিতল সেতুর বাকি থাকবে আর মাত্র আধা কিলোমিটারের কম।
এছাড়া সেতুর অন্যান্য কার্যক্রমও চলছে দ্রুত গতিতে জানিয়ে তিনি বলেন, ইতোমধ্যে ১ হাজার ২১১টি রোডওয়ে স্লাব ও ১ হাজার ৮০০ রেলওয়ে স্লাব বসানো হয়ে গেছে। সংযোগ সেতু ও নদী শাসনের কাজও দ্রুত এগুচ্ছে। মূল সেতুর অগ্রগতি ৯০ শতাংশ আর সার্বিক অগ্রগতি ৮২ শতাংশ।
সেতু কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ২০১৪ সালের ডিসেম্বরে শুরু হওয়া পদ্মাসেতু ২০২১ সালেই খুলে দেয়া হবে

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

সম্পাদক: মুহাম্মদ মাহবুবুর রহমান পলাশ

যোগাযোগ: গুলিস্তান শপিং কমপ্লেক্স, রুম নং-১০০, ঢাকা। মোবাইল: ০১৭৪০-৫৯৯৯৮৮. E-mail: odhikarpatra@gmail.com

সম্পাদক: মুহাম্মদ মাহবুবুর রহমান পলাশ

যোগাযোগ: গুলিস্তান শপিং কমপ্লেক্স, রুম নং-১০০, ঢাকা। মোবাইল: ০১৭৪০-৫৯৯৯৮৮. E-mail: odhikarpatra@gmail.com


Developed by: EASTERN IT