তালতলীতে ইউপি সদস্যকে প্রকাশ্যে কুপিয়ে হত্যা চেস্টা।


Published: 2021-07-23 16:20:36 BdST, Updated: 2021-09-29 07:47:26 BdST

তালতলী (বরগুনা) প্রতিনিধি: বরগুনার তালতলীতে এক ইউপি সদস্যকে প্রকাশ্যে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা করেছে সন্ত্রাসীরা।

বৃহস্পতিবার (২২ জুলাই ) সন্ধ্যা ৭ টার দিকে উপজেলার ০৭ নং সোনাকাটা ইউনিয়নের কবিরাজপাড়া বাজারে রহিমের দর্জির দোকানের সামনে এ ঘটনা ঘটে। আহত নিজাম মীর(৫৫)

উপজেলার সোনাকাটা ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের(ইউপি) সদস্য।

প্রত্যক্ষদর্শী আলমগীর হোসেন জানান ছয়টা মোটরসাইকেল যোগে ফারুক আকনের পুত্র মোঃ সোহেল আকন এবং মোঃ ছোমেত আকনের পুত্র রনির নেতৃত্বে অতর্কিত নিজাম মীর এর উপরে হামলা করে কুপিয়ে যখম করে। এ সময় জনতা তাদের গন ধোলাই দেয়। এবং নিজাম মীরকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

আহত নীজাম মীর জানান, সন্ধ্যায় প্রতিবেশী ফারুক আকন মোবাইল ফোনে আমাকে কবিরাজপাড়া বাজারে আসতে বলে, আমি বাজারে আসি।কিছু বুঝো উঠার আগেই রহিম মিয়ার দর্জির দোকানের সামনে বসে ফারুক আকনের পুত্র মোঃ সোহেল আকন (৩০)এবং মোঃ ছোমেত আকনের পুত্র রনি(২২) আমার গলাতে বগি দা দিয়ে কোপ দেয়। এ সময় আমি লাফ দিলে আমার বাঁম হাতের কনুই এর উপর কোপ লাগে। আমার নাত জামাতার সাথে তাদের দ্বন্দ্ব ছিল আমি সেটা মীমাংসা করে দিয়েছিলাম।

তালতলী হাসপাতালের ডাঃ দিলিপ রায় জানান,
আহত ব্যাক্তির কোপের ক্ষত অনেক গভীরে পড়েছিল চামড়ার নিচেও আরো দুটি সেলাই করতে হয়েছে।প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে আমতলী হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

তালতলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ কামরুজ্জামান মিয়া জানান, খবর পেয়েই ঘটনা স্থানে পুলিশ পাঠিয়েছি। আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। আহতরা হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন। এ ঘটনায় তালতলী থানায় এখন পর্যন্ত অভিযোগ করেনি অভিযোগ পেলেই প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

সম্পাদক: মুহাম্মদ মাহবুবুর রহমান পলাশ

যোগাযোগ: গুলিস্তান শপিং কমপ্লেক্স, রুম নং-১০০, ঢাকা। মোবাইল: ০১৭৪০-৫৯৯৯৮৮. E-mail: odhikarpatra@gmail.com

সম্পাদক: মুহাম্মদ মাহবুবুর রহমান পলাশ

যোগাযোগ: গুলিস্তান শপিং কমপ্লেক্স, রুম নং-১০০, ঢাকা। মোবাইল: ০১৭৪০-৫৯৯৯৮৮. E-mail: odhikarpatra@gmail.com


Developed by: EASTERN IT