সিংগাইরে ইত্তেফাক সংবাদদাতা ও তার সহযোগীর বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির অভিযোগ দায়ের


Published: 2022-01-03 22:11:33 BdST, Updated: 2022-01-26 19:36:45 BdST

স্টাফ রিপোর্টার: গত কয়েকদিন ধরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে মানিকগঞ্জের সিংগাইর উপজেলার ইত্তেফাক সংবাদদাতা মানবেন্দ্র চক্রবর্তী ও তার সহযোগী মোস্তাফিজুর রহমান খান মুকুলের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির ঘটনা ভাইরাল হওয়ার পর এবার লিখিতভাবে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

রোববার (২ জানুয়ারি) উপজেলার ফোর্ডনগর গ্রামের ভুক্তভোগী আল আমীন রনি নামের এক ব্যক্তি এ অভিযোগ দায়ের করেন বলে সহকারী পুলিশ সুপার (সিংগাইর সার্কেল) মোহা. রেজাউল হক নিশ্চিত করেন।

এএসপি সোমবার (৩ জানুয়ারি) সংবাদ মাধ্যমকে বলেন, মানবেন্দ্র চক্রবর্তী ও মুকুল খানের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। এসপি স্যারের অনুমতি সাপেক্ষে তদন্তপূর্বক আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

লিখিত অভিযোগ ও ভুক্তভোগীর সাথে কথা বলে জানা যায়, দৈনিক ইত্তেফাকের সিংগাইর উপজেলা সংবাদদাতা মানবেন্দ্র চক্রবর্তী(৫০) ও তার সহযোগী মোস্তাফিজুর রহমান খান মুকুল(৩৫) সাধারণ মানুষকে বেকায়দায় ফেলে দীর্ঘদিন ধরে অনৈতিকভাবে চাঁদাবাজি করে থাকে। সদ্য সমাপ্ত ইউপি নির্বাচনী কার্যক্রম পরিচালনাকালে এসপি ও ওসি সাহেবের সাথে সুসম্পর্ক আছে এ মর্মে মিথ্যা মামলার ভয় দেখিয়ে মানবেন্দ্র চক্রবর্তী ১ লাখ ১০ হাজার ও মুকুল খান ৫০ হাজার টাকা চাঁদা দাবী করে। নিরুপায় হয়ে ভুক্তভোগী রনি ৫ নভেম্বর রাত ৮ টার দিকে ফোর্ডনগর আকতার ফার্ণিচার ফ্যাক্টরীর কোয়ার্টারের সামনের রাস্তায় মানবেন্দ্র চক্রবর্তীকে ৬০ হাজার ও মুকুলকে ১২ হাজার দিয়ে রেহাই পান। পরবর্তীতে বিষয়টি প্রকাশ পাওয়ায় অভিযুক্তদ্বয় রনি ও তার পরিবারকে বিভিন্নভাবে ভয়ভীতি দেখান। পরে বাধ্য হয়ে তিনি এএসপি (সিংগাইর সার্কেল) বরাবর লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

এদিকে, মানবেন্দ্র চক্রবর্তী ও মুকুলের চাঁদাবাজির বিষয়টি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হওয়ায় সমালোচনার ঝড় ওঠে। ইত্তেফাক প্রতিনিধি মানবেন্দ্র চক্রবর্তী সিংগাইর পুকুর পাড়া মহল্লার মৃত সুবোধ কুমার চক্রবর্তীর পুত্র। তার সহযোগী মোস্তাফিজুর রহমান খান মুকুল উপজেলার ধল্লা ইউনিয়নের ফোর্ডনগর গ্রামের মনিরুজ্জামান খানের পুত্র। মুকুল ইত্তেফাক প্রতিনিধির সহায়তায় নিজেকে সাংবাদিক পরিচয়ে ফেসবুকে লাইভ দেখিয়ে বেপরোয়াভাবে দীর্ঘদিন যাবত চাঁদাবাজি করে আসছিল। তার বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা চলমানসহ বিভিন্ন অপরাধের গুরুতর অভিযোগ রয়েছে।

এ ব্যাপারে অভিযুক্ত মোস্তাফিজুর রহমান খান মুকুল তার বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির অভিযোগ অস্বীকার করে নিজেকে আইপি টিভি মুভি বাংলার প্রতিনিধি দাবী করেন।

তবে নিজের একটি নিবন্ধনবিহীন অনলাইন নিউজ পোর্টাল বন্ধ আছে বলেও জানান।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

সম্পাদক: মুহাম্মদ মাহবুবুর রহমান পলাশ

যোগাযোগ: গুলিস্তান শপিং কমপ্লেক্স, রুম নং-১০০, ঢাকা। মোবাইল: ০১৭৪০-৫৯৯৯৮৮. E-mail: odhikarpatra@gmail.com

সম্পাদক: মুহাম্মদ মাহবুবুর রহমান পলাশ

যোগাযোগ: গুলিস্তান শপিং কমপ্লেক্স, রুম নং-১০০, ঢাকা। মোবাইল: ০১৭৪০-৫৯৯৯৮৮. E-mail: odhikarpatra@gmail.com


Developed by: EASTERN IT