ভিক্ষা বৃত্তি নয়, কাজের মধ্যে জীবন বদলাতে চায় হকার রহিম


Published: 2021-01-03 18:00:11 BdST, Updated: 2021-01-22 05:52:18 BdST

 

 

কুমিল্লা (দক্ষিণ), ৩ জানুয়ারি, ২০২১  : এখনো মাঝে মাঝে ঘুমের মধ্যে লাফিয়ে উঠি, এ বুঝি পত্রিকার গাড়িটা চলে গেল। জেগে দেখি না ভোর হয়েছে আমি বিছানায় আছি। পত্রিকা বিক্রি করার পর থেকেই ভোরে জেগে উঠার অভ্যাসটা শুরু হয় তার। এভাবে কথাগুলো বলছিলেন কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার নহল চৌমহনী গ্রামের সাহেব আলীর ছেলে হকার আব্দুর রহিম।তিনি আরও বলেন ভিক্ষা বৃত্তি নয় কাজের মধ্যেই জীবন বদলাতে চান।
ঘুমের মধ্যেই কল্পনায় থাকি, কখন জানি ভোর হয়ে পত্রিকার গাড়ি চলে যায়। সময় মত স্টেশনে পৌঁছতে না পারলে গাড়ী চলে যাবে অন্য ষ্টেশনে। তাই কাকডাকা ভোর হতে পত্রিকার জন্য পান্নারপলু স্টেশন গিয়ে সুগন্ধা গাড়ির অপেক্ষায় বসে থাকি। পত্রিকা নামিয়ে সাইকেলের পেছনে বেঁধে এক হাতে সাইকেল চালাই, প্লাস্টিকে মোড়ানো অন্যহাতটি সাইকেলের উপর ফেলে রাখি। এ কায়দায় সাইকেল চালিয়ে প্রতিদিন প্রায় ৪০ কিলোমিটার রাস্তা ঘুরে বাখরাবাদ গ্যাস ফিল্ড, জাহাপুর জমিদার বাড়ি, আলীরচর কলেজ, বোরারচর ও কলাকান্দি বাজারে পত্রিকা বিক্রি করছি ১৪ বছর। এতেই তার পরিবারের ডাল ভাতের ব্যাবস্থা হয়ে যায়। তা দিয়েই ভালোই চলে যাচ্ছে তার সংসার।
আবদুর রহিম বাসসকে জানান, আমি পঙ্গু মানুষ হয়েও প্রতিদিন এ কাজটি গুরুত্বসহকারে করে যাচ্ছি। তিনি জানান, মানুষের ভালবাসা আর স্মৃতি জড়িয়ে আছে তার এ পেশায়। তাই কাজটি কখনও কষ্টের মনে হয় না। রহিম বলেন, আমি ভিক্ষা করতে শিখিনি। কাজ করে খেতে চাই।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

সম্পাদক: মুহাম্মদ মাহবুবুর রহমান পলাশ

যোগাযোগ: গুলিস্তান শপিং কমপ্লেক্স, রুম নং-১০০, ঢাকা। মোবাইল: ০১৭৪০-৫৯৯৯৮৮. E-mail: odhikarpatra@gmail.com

সম্পাদক: মুহাম্মদ মাহবুবুর রহমান পলাশ

যোগাযোগ: গুলিস্তান শপিং কমপ্লেক্স, রুম নং-১০০, ঢাকা। মোবাইল: ০১৭৪০-৫৯৯৯৮৮. E-mail: odhikarpatra@gmail.com


Developed by: EASTERN IT