ঢাকা | রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪, ৮ বৈশাখ ১৪৩১

সাদিকা পারভীন পপি বাংলা সিনেমার রহস্যময় অভিনেত্রী

odhikar patra | প্রকাশিত: ১৩ ডিসেম্বর ২০২৩ ২০:০৩

odhikar patra
প্রকাশিত: ১৩ ডিসেম্বর ২০২৩ ২০:০৩

বিনোদন ডেস্ক : ইদানিং বেশি সময় ধরে কোনো কাজের খবরে নেই জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত নায়িকা সাদিকা পারভীন পপি। তাঁকে দেখা যায় না চলচ্চিত্র অঙ্গনের কোনো আড্ডায়ও। তবে এর মধ্যে চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচন উপলক্ষে একটি ভিডিও বার্তা দিয়ে আলোচনায় আসেন তিনি। এরপর আবার উধাও। কিন্তু কিছুদিন পরপরই  তিনি খবরের শোনা গেছে, সন্তানের মা হয়েছেন পপি। তবে স্বামী কে, কবে সন্তান হলো, তাঁরা কোথায় থাকেন, তা কেউ বলতে পারেনি। কয়েক মাস বিরতির পর আবারও খবরের শিরোনাম হলেন। এবার বলা হচ্ছে, পপির স্বামী জাহাজ ব্যবসার সঙ্গে জড়িত। তাঁর সন্তানের নাম আয়াত। এতটা দীর্ঘ সময় ধরে আত্মগোপনে এর আগে কখনো থাকেননি চিত্রনায়িকা পপি। অভিনয়জীবনে শাকিল খানের সঙ্গে প্রেমের গুঞ্জন শোনা গিয়েছিল যখন, তখনো আত্মগোপনে ছিলেন তিনি। তবে তার মেয়াদ ছিল অল্প কিছুদিন। এবার কোথায় লুকালেন তিনি! প্রায় তিন বছরের বেশি সময় ধরে হন্যে হয়ে তাঁকে খুঁজছেন তাঁর প্রযোজকেরা। এমনকি পপির পরিবারের লোকেরাও জানেন না এ খবর। তবে এর মধ্যে জানা যায়, ২০২১ সালের অক্টোবরে রাজধানীর একটি বেসরকারি হাসপাতালে পুত্রসন্তানের জন্ম দেন পপি। পপির পারিবারিক একটি সূত্র জানায়, নায়িকা তাঁর সন্তানের নাম রেখেছেন আয়াত। পপির স্বামী একটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের ব্যবস্থাপনা পরিচালক। ঢাকার লালবাগ এলাকার বাসিন্দা তিনি। সূত্রটি এ–ও জানায়, বর্তমানে স্বামী-সন্তান নিয়ে ধানমন্ডিতে থাকেন পপি। এর আগে তিনি বারিধারা ও উত্তরায় ছিলেন। তবে বাসার ঠিকানা কাউকে জানাননি। এরপর ঠিকানা জানা গেলে দ্রুত ওই এলাকার বাসা ছেড়ে দেন। এদিকে চলচ্চিত্র অঙ্গনে পপির সহকর্মীরাও তাঁর সম্পর্কে কোনো খবর দিতে পারেননি। নাম প্রকাশ না করার শর্তে একাধিক সহকর্মী পপির এভাবে উধাও থাকার প্রসঙ্গে প্রথম আলোর সঙ্গে কথা বলেন। তাঁদের ভাষ্য, পপি নিজের মতো করে ভালো থাকুক, এটাই তাঁদের চাওয়া। যেহেতু নিজের মতো করে থাকতে চাইছেন, তাঁকে তাঁর মতো করে থাকতে দেওয়াটাই সবার উচিত। তাঁর ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে চর্চা না করাটা শোভনীয়। তবে পপি যদি কখনো মনে করেন, সবার সামনে এসে এত দিন না থাকার ব্যাপারে কিছু বলতে চান, বলতে পারেন। তখন সবাই সবকিছু জানতেও পারবেন। তবে পপির সহকর্মী ও ভক্তদের প্রত্যাশা, জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারজয়ী এই অভিনেত্রীর জীবনে যা-ই ঘটুক না কেন, তিনি শিগগিরই ফিরবেন সবার মাঝে, করবেন সব জল্পনা-কল্পনার অবসান। ‘ভালোবাসার প্রজাপতি’তে সর্বশেষ ২০২০-এর জুনে কাজ করেন পপি। ছবিটির প্রায় ২০ শতাংশ কাজ এখনো বাকি। শেষ করতে আরও দুই দিন শুটিং করতে হবে। তাঁর বাসায় গিয়ে ফিরে এসেছেন ছবির এক পরিচালক মাসুমা তানি। আরেক পরিচালক রাজু আলীম জানান, আর কিছুদিন অপেক্ষার পর অন্য উপায়ে ছবির শুটিং শেষ করেছেন। সুবিধাজনক সময় দেখে ছবিটি মুক্তি দেওয়ার পরিকল্পনা রয়েছে পরিচালকের।

সুএ প্রথম আলো। 



আপনার মূল্যবান মতামত দিন: