ঢাকা | সোমবার, ৩০ জানুয়ারী ২০২৩, ১৭ মাঘ ১৪২৯

বিএনপিকে জনগণের শায়েস্তার মুখোমুখি হতে হবে : হানিফ

odhikarpatra | প্রকাশিত: ১৬ জানুয়ারী ২০২৩ ১৮:২১

odhikarpatra
প্রকাশিত: ১৬ জানুয়ারী ২০২৩ ১৮:২১

ঢাকা, ১৬ জানুয়ারি, ২০২৩ : আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ বলেছেন, যারা বলেন বাহাত্তরের সংবিধান ছুড়ে ফেলতে হবে, স্বাধীন বাংলাদেশ বাই চান্স হয়েছে, তাদের জনগণের শায়েস্তার মুখোমুখি হতে হবে।

তিনি বলেন, ‘বিএনপি নেতাদেরকে আহবান জানাবো এই ধরনের ধৃষ্টতা দেখানো বক্তব্য প্রত্যাহার করুন। জাতির কাছে ক্ষমা চান। আর না হলে জনগণের শায়েস্তার মুখোমুখি হতে হবে। এর দায়ভার কেউ নেবে না।’
হানিফ আজ সোমবার রাজধানীর শহীদ মিনারে  দেশব্যাপী বিএনপি-জামায়াতের সন্ত্রাস ও নৈরাজ্যের প্রতিবাদে ঢাকা মহানগর যুবলীগ দক্ষিণের উদ্যোগে শান্তি সমাবেশে এসব কথা বলেন।
আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বলেন, তারা বাহাত্তরের সংবিধান ছুড়ে ফেলতে হবে। এতো বড় ধৃষ্টতা দেখানোর সাহস পায় কিভাবে? রাজাকারের শাবকরা স্বাধীনতায় বিশ্বাসী নয়, তাই তারা সংবিধান মানতে চায় না। বাহাত্তরের সংবিধান শুধু মূল্যবান নয়, ঐতিহাসিক দলিল হিসেবে পরিচিত। আধুনিক যুগের সময়োপযোগী সংবিধান। বিএনপি নেতাদেরকে আহবান জানাবো সংবিধান নিয়ে এই ধরণের বক্তব্য প্রত্যাহার করুন। জাতির কাছে ক্ষমা চান। আর না হলে জনগণের শায়েস্তার মুখোমুখি হতে হবে। এর দায়ভার কেউ নেবে না।
মাহবুব উল আলম হানিফ বলেন, আজকে এমন একটা সময়ে আমরা এই সমাবেশ করছি, যখন শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ বিশ্বে উন্নয়নের মডেলে পরিণত হয়েছে। ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে এক দফা কর্মসূচিতে কাজ করে যাচ্ছেন। সেই সময়ে একাত্তরের পরাজিত শক্তি জামায়াত এবং নব্য রাজাকার বিএনপি উন্নয়নের ধারাকে বাধাগ্রস্থ করার জন্য চক্রান্ত করে যাচ্ছে।
সমাবেশে যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক মাইনুল হোসেন খান নিখিল,  যুবলীগের কেন্দ্রীয় ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণ এর নেতা-কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।



আপনার মূল্যবান মতামত দিন: